fbpx

আবেগি আমি

পরন্ত ইচ্ছের এলোমেলো গল্পে বার বার আবেগি আমি,
অশান্ত পৃথিবীতে নিষ্পাপ রক্তের কাব্যিক কথন,
আমার হৃদয়ে কালের নির্মম কুঠারাঘাত,
আর কত কাল, এভাবে আমি রবো বহমান অযতন।
কত মায়া মমতা মিশে ছিল কাশফুলের ডগায়,
বৃষ্টির গন্ধে নির্ঘুম রাত কাটিয়েছি কত কাল
এসবই কী তবে কেবলি সীমাহীন ভ্রান্তির ছায়া!
নাকি মিথ্যা স্মৃতি কাতরতা আর সময়ের নির্মম অঘটন।
আজ আমার জানালা পাশে শুভ্র এলোমেলো মেঘদল,
যেন সুর্য পাথর হয়ে দাঁড়িয়ে, আকাশের বুকে।
কাননের পুষ্পরেণু আমাকে বার বার ডেকে যায়,
আমি তো পারি না যেতে তাদের কাছে,
তব জিগ্যেসী আমি কেন বার বার আবেগি করো আমায়?
কচি ঘাসে শিশির জমানো প্রেম, রাত্রিকাশে জোছনার ঢেউ,
হিজল বণে তারাদের লুকোচুরি, মধ্য দুপুরে ক্লান্ত কাক,
সবাই মিলে আমাকে পাগল করে তোলে,
আমি যেন আত্মার অভয়ারণ্যে তাদের আপন কেউ।
রোদের চাদরে ক্লান্ত বালকদের শাপলা পুকুরে ডুব,
ভরা চন্দ্রকুমারীর নিশীথ চুম্বন বনানীর গায়,
নিসর্গ পরিশ্রান্তির রেখা আঁকা কৃষকের পায়,
অবাক-খুশি মননে আমার, যেন সে নিশ্চুপ।
হে প্রকৃতি, আমি তোমাতে ডুবি তোমাতে ভাসি,
তোমাতে খুঁজি যন্ত্রণাময়ী প্রেম,
রেখো এ আবদার করো আমায় আবেগি,
সুপ্রসন্ন সুখে দুলবো আমি এ যেন মায়াবী ফ্রেম।