fbpx

বই এর নাম : আমার বন্ধু রাশেদ

লেখক : মুহাম্মদ জাফর ইকবাল

“আমার বন্ধু রাশেদ” মুক্তিযুদ্ধের প্রেক্ষাপটে মোহাম্মদ জাফর ইকবালের রচিত একটি অসাধারণ কিশোর উপন্যাস। এই উপন্যাসের মূল চরিত্র ১২-১৩ বছর বয়সী ক্লাস সেভেনে পড়া এক কিশোর বালক রাশেদ। এই কিশোর বয়সে রাশেদ খেলাধুলা করা, ঘুরে বেড়ানোর পরিবর্তে, সে মিলিটারি বাহিনীদের ওপর নজর রাখা, রাজাকারদের ভয় দেখানো, মুক্তিবাহিনীদের সাহায্য সহযোগিতা করা এমন সাহসিকতাপূর্ণ কাজ করে। এছাড়া অন্যান্য চরিত্রের মধ্যে রয়েছে রাশেদের বয়সী ইবু, আশরাফ, ফজলু, কলেজ এ পড়ুয়া শফিক, অরু। দেশে পাক বাহিনীর আক্রমণে এই শিশু-কিশোরদের স্বাভাবিক দূরন্তপনা শৈশব ও কৈশোর আটকে যায় ঘরের চার দেয়ালের মাঝে। এই কিশোর বয়সে রাশেদ ও তার বন্ধুদের দেশকে স্বাধীন করার যে প্রাণপণ প্রচেষ্টা তা এই উপন্যাসে উঠে এসেছে। রাজাকার ও পাকিস্তানি বাহিনীর নির্মম অত্যাচার এবং নিরীহ মানুষের উপর হত্যাকাণ্ড দেখে কিশোর রাশেদ ও তার বন্ধুরা মনে মনে দেশকে মুক্ত করার ও স্বাধীন বাংলা গড়ার স্বপ্ন বুনতে থাকে। বড়দের পাশাপাশি ছোটরাও মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করে অসীম সাহসিকতার সাথে বিভিন্ন অপারেশন পরিচালনায় সাহায্য করে। তাদের তুখোর বুদ্ধি দিয়ে বাঁচা মরার ভয়কে পাশ কাটিয়ে অসীম সাহসিকতার সাথে কিভাবে একজন আহত মুক্তিযোদ্ধাকে পাকবাহিনীর হাত থেকে উদ্ধার করে তা এই উপন্যাসে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। রাশেদের মতো এমন লাখো কিশোর শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের বুকের রক্তে গড়া এই স্বাধীন বাংলা। আমাদের বাংলাদেশ!!

এই উপন্যাসের আমার কিছু প্রিয় উদ্ধৃতি :

১.”এখন এমন একটা সময় যেটা আগে কখনো হয় নাই। এমন সময় কি করতে হয় বড়রাও জানে না যে আমাদের বলবে। এখন আমাদের নিজেদের ঠিক করতে হবে আমরা কি করব।”

২.” শরীরে গুলির বেল্ট বেধে তার উপরে শার্ট প্যান্ট পড়ে চলে যাব আমরা ছোট বলে কেউ সন্দেহ করবে না। কি মনে হয়? “

৩.”কমরেড শফিক! মুক্তিযোদ্ধার একটি স্পেশাল কমান্ডো দল আপনাকে নিয়ে যেতে এসেছে। “

৪.” তুই আমার বন্ধু হবি? একেবারে প্রাণের বন্ধু। সারা জীবনের বন্ধু। মরে গেলেও যে বন্ধু থেকে যায়, সেই বন্ধু। হবি?”