বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীর স্মৃতি টুর্নামেন্ট ২০১৯ এর শুভ সূচনা

বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে চরম সাহসিকতা আর অসামান্য বীরত্বের স্বীকৃতিস্বরূপ যে সাতজন বীরকে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ সামরিক সম্মান “বীরশ্রেষ্ঠ” উপাধিতে ভূষিত করা হয় তাদের মধ্যে ক্যাপ্টেন মহিউদ্দীন জাহাঙ্গীর অন্যতম। এই শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগের ছাত্র। তারই স্মৃতিতে এবছর প্রথমবারের মত বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীর স্মৃতি টুর্নামেন্টের আয়োজন করে পরিসংখ্যান বিভাগ। আয়োজক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে ৬৬তম ব্যাচ(৩য় বর্ষ)। ২৫ এপ্রিল এই টুর্নামেন্টের উদ্বোধন ঘোষণা করেন পরিসংখ্যান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোঃ লুৎফর রহমান। প্রাথমিকভাবে সর্বমোট চারটি আউটডোর ইভেন্ট নিয়ে এই টুর্নামেন্ট শুরু হয়। সেগুলো হলঃ

ছেলেদের-

১. ফুটবল ( প্লেয়ার-৯ জন, এক্সট্রা-২ জন)
২. ক্রিকেট (প্লেয়ার -৯জন,এক্সট্রা-২জন)
৩. বাস্কেটবল (প্লেয়ার-৫জন, এক্সট্রা-২ জন)

মেয়েদের-

১. ক্রিকেট(প্লেয়ার-৬জন, এক্সট্রা-২ জন)

১. মেয়েদের ক্রিকেটঃ ৬৪তম ব্যাচ, ৬৬তম ব্যাচ আর ৬৮ তম ব্যাচ- এই তিনটি দল  টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করে। ২৫ নভেম্বর মেয়েদের ক্রিকেট টুর্নামেন্ট শুরু হয় ১ম বর্ষ(৬৮তম ব্যাচ) বনাম ৩য় বর্ষের(৬৬তম ব্যাচ) মেয়েদের ক্রিকেট ম্যাচের মাধ্যমে। এ ম্যাচটি গুরুত্বপূর্ণ এ কারণে যে এটি একইসাথে পরিসংখ্যান বিভাগের ইতিহাসে প্রথমবারের মত আয়োজিত মেয়েদের ক্রিকেট টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচ এবং প্রথমবারের মত আয়োজিত বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীর টুর্নামেন্টেরও প্রথম ম্যাচ। এই ম্যাচে ৬৬ তম ব্যাচ অসাধারণ পারফর্ম করে ১২৭ রানের বিশাল জয় পায়। ৬৮তম ব্যাচও তাদের সাধ্যমতো চেষ্টা করে, কিন্তু বর্ণার ব্যাটিং তাণ্ডবে আর অসাধারণ বোলিংয়ের কাছে তারা হার মেনে যায়। উল্লেখ্য যে এই ম্যাচে ২০ বলে ১১৪ রান আর ৩ উইকেট নেয় বর্ণা। এদিকে নিউ মাস্টার্স (৬৪তম ব্যাচ) অসাধারণ খেলে অপরাজিত দল হিসেবে সবার আগে ফাইনালে জায়গা করে নেয়। ৩য় বর্ষ বনাম নিউ মাস্টার্স এর মধ্যে অনুষ্ঠিত হয় ফাইনাল খেলা। খেলা দেখতে উপস্থিত ছিলেন পরিসংখ্যান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোঃ লুৎফর রহমান , শিক্ষক ড. জাকির হোসেন , শিক্ষক মোঃ মাহমুদুল হাসানসহ  বিভাগের শিক্ষার্থীরা। বলা যায়, এই ফাইনাল খেলাটিতেই সবচেয়ে বেশি দর্শকের সমাগম ছিল। উক্ত খেলায় প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ৩য় বর্ষের সংগ্রহ ছিল ৬১ রান। এই ম্যাচ শেষ ওভারের শেষ বল অবধি টানটান উত্তেজনা বিরাজ করছিল। অবশেষে সকল উত্তেজনার অবসান ঘটিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে ৩য় বর্ষ। অপরদিকে অসাধারণ ক্রিকেট খেলেও নিউ মাস্টার্স ক্রিকেট দলকে রানার্সআপ হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়। ম্যাচটি শেষে মাননীয় চেয়ারম্যান সবার সাথে গ্রুপ ছবি তোলেন ।

২. বাস্কেটবলঃ প্রথমবারের মত আয়োজিত বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীর টুর্নামেন্টে যোগ করা হয় বাস্কেটবল টুর্নামেন্ট। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষা কেন্দ্রে এই টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়। এই টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করে বিভাগের ৬৩তম ব্যাচ, ৬৬তম ব্যাচ, ৬৭তম ব্যাচ আর ৬৮ তম ব্যাচ বাস্কেটবল দল। বাস্কেটবল টুর্নামেন্টটি শুরু হয় ১ম বর্ষ(৬৮তম ব্যাচ) বনাম ২য় বর্ষের(৬৭তম ব্যাচ) ম্যাচের মাধ্যমে। ১ম বর্ষ এই ম্যাচে ১০-২ পয়েন্টে অসাধারণ জয় পায়। এরপর প্রতিটি ম্যাচে অসাধারণ খেলে আগেই ফাইনাল নিশ্চিত করে মাস্টার্স(৬৩ তম ব্যাচ)এর বাস্কেটবল দল। অনেক ক্যালকুলেশনের পর অসাধারণ খেলে ফাইনালে জায়গা করে নেয় ১ম বর্ষ। ১ম বর্ষ বনাম মাস্টার্স এর ফাইনাল ম্যাচে উভয় দলেই দুর্দান্ত খেলে ৮-১৪ পয়েন্টে এই ঐতিহাসিক টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে মাস্টার্স এর বাস্কেটবল দল। ১ম বর্ষের বাস্কেটবল প্রথমবারের মত বাস্কেটবল টুর্নামেন্ট খেলতে নেমে রানার্সআপ হয়।

৩. ছেলেদের ক্রিকেটঃ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে পহেলা মে, ২০১৯ ছেলেদের ক্রিকেট টুর্নামেন্ট শুরু হয়। অংশগ্রহণকারী দলগুলো হলঃ প্রাক্তন শিক্ষার্থী, ৬৩তম ব্যাচ, ৬৫তম ব্যাচ, ৬৬ তম ব্যাচ(এ), ৬৬ তম ব্যাচ(বি), ৬৭ তম ব্যাচ এবং ৬৮তম ব্যাচ ক্রিকেট দল। প্রাক্তন শিক্ষার্থী বনাম ৩য় বর্ষ(বি)(৬৬ তম ব্যাচ) এর ক্রিকেট ম্যাচের মাধ্যমে এই টুর্নামেন্টের সূচনা হয়। প্রথম ম্যাচে প্রাক্তন শিক্ষার্থী দল ৩য় বর্ষ(বি) দলকে ১৯ রানে পরাজিত করে। জমজমাট এই টুর্নামেন্ট বৃষ্টির কারণে বাধাপ্রাপ্ত হয়ে ৩মে এর পর খেলা পিছিয়ে যায়। এরপর ১৯ জুলাই ড. মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ হলের মাঠে টুর্নামেন্টটি আবার শুরু হয়। ৬৬ তম ব্যাচ(এ) অসাধারণ পারফর্ম করে সবার আগেই ফাইনালে জায়গা করে নেয়। অতঃপর ৪র্থ বর্ষ (৬৫ তম ব্যাচ) বনাম মাস্টার্স(৬৩ তম ব্যাচ) এর মধ্যে উত্তেজনাকর সেমিফাইনালে ৪র্থ বর্ষ জিতে যায়। ফাইনাল হয় ৩য় বর্ষ(এ) বনাম ৪র্থ বর্ষ। টানটান উত্তেজনায় খেলা চলতে থাকে, শেষ মুহূর্তে এসে ক্যারিশমাটিকভাবে জিতে যায় ৪র্থ বর্ষ। ৪র্থ বর্ষ অসাধারণ খেলে এই টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে। আর ৩য় বর্ষ(এ) এর অসাধারণ দলীয় পারফর্মেন্স প্রদর্শন করলেও তাদেরকে রানার্সআপ হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়।

৪. ছেলেদের ফুটবলঃ ২৬ এপ্রিল, ২০১৯ ছেলেদের ফুটবল টুর্নামেন্ট শুরু হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে। অংশগ্রহণকারী দলঃ প্রাক্তন শিক্ষার্থী, ৬৩তম ব্যাচ, ৬৪ তম ব্যাচ, ৬৫তম ব্যাচ, ৬৬তম ব্যাচ, ৬৭তম ব্যাচ(এ), ৬৭তম ব্যাচ(বি), ৬৮ তম ব্যাচ ফুটবল দল। ২য় বর্ষ(বি)(৬৭তম ব্যাচ) বনাম ৩য় বর্ষ(৬৬তম ব্যাচ) এর ম্যাচের মাধ্যমে ফুটবল টুর্নামেন্ট শুরু হয়। প্রথম ম্যাচটি ড্র হয়। উল্লেখ্য ১ম বর্ষ অসাধারণ ফুটবল খেলেও দূর্ভাগ্যবশত তারা ফাইনালে যেতে ব্যর্থ হয়। ৩য়  বর্ষ আর প্রাক্তন শিক্ষার্থী পরিণত ফুটবল খেলে ফাইনালে জায়গা করে নেয়। শ্বাসরুদ্ধকর এই ফাইনাল ম্যাচে প্রথমদিকে প্রাক্তন শিক্ষার্থী দল এগিয়ে থাকলেও মোস্তাফার অসাধারণ গোলে ৩য় বর্ষ খেলায় সমতা আনে। কিন্তু শেষ মুহূর্তে প্রতিপক্ষের প্লেয়ার আকিব মামুনের  গোলে এগিয়ে যায় এক্স স্টুডেন্ট দল। অবশেষে ফাইনালে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে প্রাক্তন শিক্ষার্থী দল। আর রানার্সআপ হয় ৩য় বর্ষ। ফাইনাল খেলার সময় বিভাগের মাননীয় চেয়ারম্যান উপস্থিত থেকে সবাইকে উৎসাহিত করেন।

 ২৫ এপ্রিল মেয়েদের ক্রিকেট খেলা দিয়ে জাহাঙ্গীর স্মৃতি টুর্নামেন্ট শুরু হয়েছিল এবং ২৮ জুলাই ছেলেদের ক্রিকেট ম্যাচের ফাইনাল দিয়ে টুর্নামেন্ট শেষ হয়। এই টুর্নামেন্টের পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান এ পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয় নি। আশা করা যায় আসন্ন ইদ-উল-আযহা এর পর বিভাগের চেয়ারম্যান মোঃ লুৎফর রহমানের সহযোগিতায় পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হবে।

প্রতিবেদকঃ আবরার ফাহিম সুহাস (৩য় বর্ষ)

কমেন্ট করুন