বেগুনিরঙা

যেদিন প্রথম তোমাকে দেখেছিলাম
জ্যৈষ্ঠের মধ্যদুপুরে, টিএসসি চত্বরে
দোতলা লাল বাসের অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে;
হাতে বেগুনি রঙের কাঁচের চুড়ি।
একবার আড়চোখে তাকিয়ে,
ছুটলে নিজ গন্তব্যে।

পরেরদিন ওই একই যায়গায়,
আমি অপেক্ষায়।
ওই চাহনী যে আমার প্রতিটি মুহূর্তকে
করে তুলেছিল গুরুত্ববহ।
অচিরেই তুমি অপেক্ষার ইতি টানলে;
হাত পাঁচেক দূরে দাঁড়িয়ে হাসছিলে প্রাণখুলে।
অজানা কারনটাই মনে হল নিজের কিছু,
সাহস হচ্ছিল না, তবুও নিলাম পিছু।

পরে তুমি সেদিনের কাহিনীটা শুনে,
হেসেছিলে, কিন্তু খুশি হয়েছিলে মনে মনে।
এরপর আমরা কত ঘুরেছি বলো!
কার্জনের ভেলপুরি, দোতলা বাসে বসে গল্প;
টিএসসি, এফবিএস, সমাজবিজ্ঞান চত্ত্বর,
কোথাও তো স্মৃতি নেই অল্প।

কথা হয়না অনেকদিন, হয়েছিল শেষ কবে?
কাল বোধহয় তা ৩৬৭ দিনে পড়বে।
জানো, আমি নিজেকে গুছিয়ে নিয়েছি,
মনেরাগোচরে।
স্মৃতির সমুদ্র পাড় হচ্ছি আমি, সাঁতরে;
নানা রঙ এর স্মৃতি, সাদাকালো হয়ে জমা।
বলছিনা আর, ভালো থেকো;
ও আমার বেগুনিরঙা।

কমেন্ট করুন
শিক্ষার্থী | পরিসংখ্যান বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

সেশন: ২০১৩-২০১৪

রাহাত হাসান প্রিয়

সেশন: ২০১৩-২০১৪

0