তাপদহন

রৌদ্রদাহ চলছে জোরে
ঘামছে মানুষ, যাচ্ছে দুরে,
পথের মাঝে ক্লান্ত হয়ে
ছটফটিয়ে শ্রান্ত কায়ে।
বাতাসগুলো ঘুপটি মেরে
রয়েছে বসে আরাম করে,
বেবাক মানুষ, যায় মরে যায়
তাতে তার কি আসে যায়!
চাতক তারে ডেকে এনে দেয়
শূন্য খাচার আবডালে।
পিচ ঢালা পথ ঝলসে ওঠে
তপ্ত কিরন যখন হাসে,
লেজার রশ্মি যায় চলে যায়
কালো পর্দা থমকে দাড়ায়।
কুকুর গুলোর মুখের লালা
সিক্ত করে পথের ঢেলা,
হাসফুসিয়ে যায় যে মরে
পানির লেভেল যাচ্ছে দুরে।
গাছের তলায় পথিক দাড়ায়
আকাশ পানে আড় চোখে চায়,
মেঘ ভেসে যায় অচীনপুরে
মানুষ গুলো ধুকরে মরে।
অবশেষে বৃষ্টি নামে
তপ্ত মরুর শ্রান্ত ধরায়।।

কমেন্ট করুন
প্রাক্তন শিক্ষার্থী | সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, চুয়েট

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.