খুঁজে নিয়ো উত্তর

যেখানে শব্দেরা প্রতিনিয়ত ব্যর্থ হয়,
বাক্যগুলো অযাচিত বলে মনে হয়-
সেখানে কবিতা পাঠের আসর?
পরিহাস বৈকি!

যেখানে কলমের আঁচড়ে রক্ত ঝরে
কাগজ হয় ক্ষত-বিক্ষত
সেখানে গল্প শোনাবে তুমি?
তুমি হয়ত জানোনা-
গল্পেরা এখানেই জন্ম নেয়,
গল্পদের এখানেই মৃত্যু হয়।

যে গল্প লিখে তোমার
যশ-খ্যাতি-সম্মান
সে গল্পের চরিত্রেরা বাস করে এখানেই ।
ওদের অবশ্য
তোমার গল্পের কথা জানা নেই।

যে লাঙল জোয়ালের ছবি এঁকে
তুমি আজ বড় শিল্পী,
সে লাঙল জোয়ালগুলো
এখানে ভেঙে পড়ে আছে।
চাইলে দেখে যেতে পারো
অবশ্য_
যদিবা তোমার সময় হয়।

যে সবুজ মাঠের কথা,
যে সোনালী ফসলের কথা,
গোলাভরা ধানের কথা দিয়ে
তুমি রোজ সুর বাঁধো-
সে সবুজ মাঠ,
সে সোনার ফসল একদিন
এখানেই ছিলো।
একদিন এখানে উঠোনভর্তি ধান ছিলো,
গাছে গাছে ফল ছিলো,
ছিলো পুকুরভর্তি মাছ।
এখানে প্রাণ ছিলো, গান ছিলো
আর
কৃষকের চোখে স্বপ্ন ছিলো।

কিন্তু আজ –
আজ এখানে বানভাসিদের হাহাকার,
এখানে অন্নহীন,বস্ত্রহীন,ভিটাহীন মানুষের চিৎকার।
প্রকৃতি যেন আজ উন্মাদ হয়ে গেছে,
তার ভয়াল,নিষ্ঠুর অগ্নিমূর্তি নিয়ে হাজির হয়েছে
মুছে দেবে সব স্বপ্ন,
কেড়ে নেবে জীবনের সব রং –
এই যেন তার অঙ্গীকার।

অবাক হলে কবি?
আজকের খবরগুলো হয়ত তোমার
জানা নেই কবি।
আজকে তোমার ব্যস্ত জীবন
ভক্তকূলের ভিড় ভীষণ।
ওদের এই নিষণ্ন অবসরের,
এই নিরন্ন দিনাতিপাতের,
এই স্বপ্নহীন চোখের-
গল্প শোনার ফুরসত কোথায় তোমার?

তোমাকে আমি দোষ দিচ্ছিনা কবি,
তোমাকে এ নিয়ে ভাবতে হবেনা গায়ক,
তোমাকে এ ছবি আঁকতে হবেনা শিল্পী।
শুধু মনে রেখ-
যেখানে শব্দেরা প্রতিনিয়ত ব্যর্থ হয়,
বাক্যগুলো অযাচিত বলে মনে হয়-
সেখানে কবিতা পাঠের আসর?
পরিহাস বৈকি!
যেখানে ঘুম পাড়ানি গান বাজে কান্নার সুরে,
কল্পনার নাটাই সুতো ছেড়ে দিয়ে অনেক দূরে,
সেখানে তুমি বাঁধবে নতুন সুর?
খুঁজবে তুলির নতুন কোনো রং?

যদি কখনও সময় হয়,
খুঁজে নিয়ো উত্তর-
নিজেরই কাছে।
আমার প্রশ্নের জবাব তোমারই জানা আছে।

কমেন্ট করুন
শিক্ষার্থী | পরিসংখ্যান বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

সেশনঃ ২০১৭-১৮

নাজিয়া তাসনিম

সেশনঃ ২০১৭-১৮

0