সম্পাদকীয় – জুন ২০২০

অনেক দিন ডিপার্টমেন্টে যাই না! কবে যেতে পারবো জানি না!

এক সময় নিশ্চয়ই করোনার ভয়াবহতা কমে যাবে। স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেয়া হবে। ছাত্ররা দল বেঁধে ক্লাস করতে এসে হারানো বন্ধুদের স্মৃতিচারণ করবে, তাদের সাথে তোলা সেলফি আর ভিডিওগুলো শেয়ার করবে।

তারপর, স্মৃতিচারণ থেমে যাবে পরীক্ষার চাপে। সেলফিগুলো চলে যাবে হাজারো নতুন সেলফির নিচে।

কিন্তু, করোনার ভয়াল থাবায় যে পরিবার তাদের সন্তান হারিয়েছে, তারা কি আর আগের মতো হতে পারবে?

মানুষ কেন এমন? দশটা সন্তান বেঁচে থাকলেও হারিয়ে যাওয়া একটা সন্তানের জন্য মানুষ কেন সারা জীবন হা-হুতাশ করে?

প্রিয় পাঠক, সাবধান থাকুন, নিজেকে সুস্থ রাখুন – আপনার আপনজনের জন্য। করোনার পাশাপাশি ডেঙ্গুর কথা খেয়াল রাখুন।

সবার জন্য শুভ কামনা।

কমেন্ট করুন

প্রাক্তন শিক্ষার্থী

পরিসংখ্যান বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

সেশনঃ ১৯৮৩ - ৮৪

জাফর আহমেদ খান

প্রাক্তন শিক্ষার্থীপরিসংখ্যান বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সেশনঃ ১৯৮৩ - ৮৪

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.